Home / জাতীয় / এপেক্স ক্লাব অব ভালুকা (ইউসি)এর আত্ম প্রকাশ

এপেক্স ক্লাব অব ভালুকা (ইউসি)এর আত্ম প্রকাশ

ভালুকা( ময়মনসিংহ )প্রতিনিধি : আন্তর্জাতিক সেবা সংগঠন এপেক্স ক্লাব অব ভালুকার যাত্রা শুরু করেছে। এ উপলক্ষে শুক্রবার (০৩ সেপ্টেম্বর ) ভালুকা ডক্টর ক্যাফেতে
এক উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
এপেক্স ক্লাব অব ব্রম্মপুত্রের প্রেসিডেন্ট আলী  ইউসুফের  সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন এপেক্স বাংলাদেশের ন্যাশনালের প্রেসিডেন্ট নিজাম উদ্দিন পিন্টু। বিশেষ অতিথি ছিলেন হেলাল উদ্দিন, মোস্তফা আল আতিক, এম মনিরুল ইসলাম এ এফ এম এনামুল হক মামুন,সুজিত কুমার সুব্রত।
এপেক্স ক্লাব অব ভালুকার কর্মকর্তারা হলেন প্রেসিডেন্ট মো. মোকছেদুর রহমান মামুন, সিনি: ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. সাইদুর রহমান, জুনি: ভাইস প্রেসিডেন্ট এপেক্সিয়ান সফিউল্লাহ আনসারী, সেক্রেটারি ডাঃরেজাউল করিম অপু,
এক্সপেনশন ডাইরেক্টর মো. আসাদুজ্জামান সুমন, ট্রেজারার
রফিকুল ইসলাম রিটন, সার্ভিস ডাইরেক্টর সাইদুল ইসলাম, লুৎফর রহমান, আনোয়ার তরফদার, ওমর ফারুক তালুকদার, এবং সার্জেন্ট অ্যাট আর্মস হাফিজ আল আসাদ।
ফ্লোর মেম্বাররা হলেন,এ আর এম শামসুর রহমান, মীর রায়হান আলী, মোস্তফা কামাল, সামিদুল হক, বাধন বনিক, শাহাদাৎ হোসেন, মোর্শেদ মিয়া, কবির হোসেন, আতাহার রব্বানী ও রিয়াদ আমান।
আরও অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাপার সদস্য সচিব কামরুল হাসান পাঠান কামল, প্রভাষক আ.ফ.ম আফজাল হাসান, ভালুকা বয়েজ ক্লাবের সভাপতি এস এম গোলাম, বয়েজ ক্লাবের সাধারন সম্পাদক হাবিবুল্লাহ সবুজ, ভালুকা ব্লাড ডোনার সোসাইটির  সভাপতি এস এম ফিরোজ আহম্মেদ প্রমুখ।
সেবা, সুনাগরিকত্ব ও সৌহার্দ্য এ তিন মন্ত্রে বলীয়ান হয়ে ১৯৩১ সালের অস্ট্রেলিয়ার জিলং শহরের তিন তরুণ স্থাপত্য প্রকৌশলী  ইওয়েন লেয়র্ডি, লংহা, প্রউড এবং জন বাকান যুব সমাজকে একত্রিত করে নিঃস্বার্থ কাজ করার লক্ষে এপেক্স ক্লাব নামে একটি সংগঠন গড়ে তোলে। যা আজ বিশ্বময় সুপরিচিত এর সদস্যদের সুন্দর ভূমিকার জন্য।
১৯৬১ সালের ১৯ জুলাই এপেক্স ক্লাব অব ঢাকা প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে বাংলাদেশ এপেক্স-এর রশ্মির প্রথম বিচ্ছুরণ ঘটে। এরপর আস্তে আস্তে চট্টগ্রাম, সিলেট, কুমিল্লা, বরিশাল, নারায়ণগঞ্জ ও জাহাঙ্গীনগর ক্লাবের প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে বাংলাদেশে এপেক্সের প্রসার শুরু হতে থাকে।
বর্তমানে ক্লাবগুলো ৯টি জেলায় বিভক্ত ও ১টি জাতীয় বোর্ড এর মাধ্যমে বাংলাদেশ এপেক্সের কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। বর্তমানে ক্লাবের সংখ্যা চার্টার্ড ও আনচার্টার্ড ক্লাব মিলিয়ে ১৩৫এর অধিক ক্লাব এবং সদস্য সংখ্যা ৩০০০ এর অধিক হবে। ২২-৬০ বছর বয়সের মোটামুটিভাবে আর্থিক স্বচ্ছল, সমাজসেবায় একান্ত বাসনা এবং দেশ-বিদেশ সমবয়সীদের মধ্যে বন্ধুত্ব স্থাপনে ইচ্ছুক যে কেউ এপেক্স এর সদস্য পদ গ্রহণ করে নেতৃত্বের গুণাবলী অর্জন করতে পারেন।

Check Also

বাংলাদেশ ভূমিহীন আন্দোলনের হবিগঞ্জ জেলার কমিটি গঠন

অনলাইন ডেস্ক : বাংলাদেশ ভূমিহীন আন্দোলনের হবিগঞ্জ জেলার কমিটি আজ সোমবার দুপুরে সাবেক সমাজ কল্যান …