Home / সারাবাংলা / বরগুনায় ইএইচডি প্রকল্প থেকে পৌরসভা ও ক্লিনিকে ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম হস্তান্তর

বরগুনায় ইএইচডি প্রকল্প থেকে পৌরসভা ও ক্লিনিকে ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম হস্তান্তর

 

 

এম আর অভি, বরগুনাাঃ বরগুনায় ইএইচডি প্রকল্প থেকে বরগুনা পৌরসভায় ও এনজিও সূর্যের হাসি ক্লিনিকে ব্যক্তিগত সুরক্ষা-সরঞ্জাম হস্তান্তর করা হয়েছে । গতকাল রবিবার (১২ জুলাই, ২০২০) যুক্তরাজ্যের দাতা সংস্থা ইউকে এইড-এর সহযোগিতায়, কনসার্ন ওয়ার্ল্ডওয়াইড-এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে এবং পার্টনারস ইন হেলথ্ এন্ড ডেভেলপমেন্ট (চঐউ)-এর ব্যবস্থাপনায় “সুবিধাবঞ্চিত জনগোষ্ঠীর জন্য অত্যাবশ্যকীয় স্বাস্থ্যসেবা” প্রকল্পের পক্ষ থেকে প্রকল্প বাস্তবায়নকারী সংস্থা পার্টনারস ইন হেলথ্ এন্ড ডেভেলপমেন্ট (চঐউ) এর ব্যবস্থাপনায় বরগুনা পৌরসভা ইপিআই শাখা ও সূর্যের হাসি ক্লিনিক-কে ১২ ধরনের করোনা সংক্রমন প্রতিরোধ সামগ্রী ও ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম হস্তান্তর করা হয়। পৌরসভার মেয়র মোঃ শাহাদত হোসেন নিজ কার্যালয়ে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এসব সরঞ্জাম বরগুনা পৌরসভার ইপিআই সুপারভাইজার জান্নাতুল ফেরদৌস ডেইজি এবং সূর্যের হাসি ক্লিনিক এর ক্লিনিক ম্যানাজার মোঃ আতাউর রহমান লিটন এর নিকট এসব সংক্রমন প্রতিরোধ সামগ্রী ও ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম হস্তান্তর করেন। বাংলাদেশ সরকারের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রনালয়ের সার্বিক নির্দেশনায় দেশের দক্ষিণ উপকূলীয় অঞ্চলে এ প্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে।
সংক্রমন প্রতিরোধ সামগ্রী ও ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম হস্তান্তর অনুষ্ঠানে এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো উপস্থিত ছিলেন বরগুনা পৌরসভার সচিব মোঃ রফিকুল ইসলাম, ইপিআই সুপারভাইজার জান্নাতুল ফেরদৌস ডেইজি, সূর্যের হাসি বরগুনা ক্লিনিক ম্যানাজার মোঃ আতাউর রহমান লিটন, পিএইচডি-ইএইচডি বিভাগীয় কর্মসূচী সমন্বয়কারী মোঃ মোমেন খান,বরগুনা পিএইচডি-ইএইচডি স্বাস্থ্য সমন্বয়কারী মোঃ বদিউজ্জামান, আরএইচস্টেপের ফিল্ড কো-অর্ডিনেটর মোঃ মিরাজ হোসেন এবং প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার ব্যাক্তিবর্গ সহ বরগুনা পৌরসভার অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, “এই সকল উপকরণ স্বাস্থ্যসেবা পেশাজীবীদেরকে সাহস ও আত্নবিশ্বাসের সাথে তাদের মহান দায়িত্ব পালন চালিয়ে যেতে সহায়তা করবে। পরিশেষে এই এলাকার সুবিধাবঞ্চিত জনগোষ্ঠীই এই উদ্যোগের চুড়ান্ত সুবিধাভোগী হবে।” তিনি ইএইচডি প্রকল্পের জন্য শুভ কামনা এবং ভবিষ্যতে যে কোন প্রয়োজনে সহায়তার প্রতিশ্রুতি প্রদান করে।
বিশেষ অতিথি তার বক্তব্যে বলেন কনসার্ন ওয়ার্ল্ডওয়াইড ও পিএইচডি কে এই করোনা মোকাবেলায় করোনা সংক্রমন প্রতিরোধ সামগ্রী ও ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম প্রদান করার জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই এবং এই মহামারীর সময় সরকারের পাশাপাশি বেসরকারী সংস্থা সমূহের অংশিদারিত্বমূলক উদ্যেগ উজ্জল দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে তিনি আরো বলেন এই সকল উপকরণ সেবা প্রদারকারীকে আরো সাহস যোগাবে। তিনি ইএইচডি প্রকল্পের জন্য শুভ কামনা এবং ভবিষ্যতে যে কোন প্রয়োজনে সহায়তার প্রতিশ্রুতি প্রদান করে। মো. মোমেন খান -ডিভিশনাল প্রোগ্রাম কোর্ডিনেটর, পিএইচডি, বলেন করোনা সংক্রমন প্রতিরোধে প্রতিরোধ সামগ্রী ও ব্যক্তিগত সুরক্ষাই হলো প্রধান হাতিয়ার। স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকারী বিশেষ করে ডাক্তার, নার্স ও সংশ্লিষ্ট সকলে ব্যক্তিগত সুরক্ষা এই মূহুর্তে খুব প্রয়োজন।
উল্লেখ্য যে, কনসার্ন ওয়ার্ল্ডওয়াইড এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে যুক্তরাজ্যের দাতা সংস্থা ইউকে এইড এর সহযোগিতায় পার্টনারস ইন হেলথ্ এন্ড ডেভেলপমেন্ট (চঐউ) বরিশাল বিভাগের ৩টি জেলার মোট ৮টি উপজেলায় এ প্রকল্পের বাস্তবায়নকারী সংস্থা হিসেবে কাজ করছে।

 

Check Also

লক্ষ্মীপুরে প্রধানমন্ত্রীর ঘর পেল মুক্তিযোদ্ধা 

সোহেল হোসেন লক্ষ্মীপুর জেলা প্রতিনিধি :  লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার দত্তপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) তিনবারের সাবেক …