Breaking News
Home / জীবন ধারা / কভিড ১৯_- করোনা-২০২০ / মৌলিক চাহিদা সংকটে পিছিয়ে পড়া বেদে জনগোষ্ঠী

মৌলিক চাহিদা সংকটে পিছিয়ে পড়া বেদে জনগোষ্ঠী

 

জাহান আশরাফ, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট : যাযাবর শ্রেণীর অন্যতম একটি পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠী বেদে সম্প্রদায়। আদি পেশা বাণিজ্য হওয়ায় যারা সওদাগর হিসেবেও পরিচিত। কিন্তু কালের পরিক্রমায় পেশা হিসেবে তারা বেছে নেয় সাপ ধরা, সাপের খেলা দেখানো এবং সাপের বিষ নামানো সহ ঝাড়ফুঁক-শিঙা লাগানো প্রভৃতি। মূলত বেদে সম্প্রদায়ের লোকজন এক স্থানে বাস না করে নৌকাতে ভ্রাম্যমাণ আবাস গড়ে জীবিকা নির্বাহ করে। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে তাবু খাটিয়ে চলে তাদের ভ্রাম্যমাণ জীবনযাত্রা।
করোনাকালীন সময়ে ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলার রায়মনি গ্রামের একটি খোলা মাঠে অস্থায়ী বসতি স্থাপন করেছে ৫০টি পরিবারের এই বেদে সম্প্রদায়। করোনা পরিস্থিতিতে দেশের অন্যান্য সব পেশাজীবি মানুষের মতো তাদের পেশাতেও এসেছে ভাটা, আগের মত নেই রোজগার, হুট হাট করে কোন স্থানে যেতে তারা হচ্ছে বাধার সম্মুখীন। তাই তাবুর ভিতরে – বাইরে বসেই কাটছে তাদের দিনকাল। এমন অবস্থায় তাদের কাছে পৌঁছেনি সরকারি কিংবা কোন ব্যক্তি বা সংগঠনের সাহায্য। ত্রাণ তালিকার বাইরে থাকা এই জনগোষ্ঠী এই সময়ে আরও কষ্টে দিনাতিপাত করছে।
বেদে সম্প্রদায়ের প্রধান মোঃ আসকর আলী বলেন, আমাদের নেই কোন স্থায়ী বসতি। জন্ম নিবন্ধন কার্ড বা জাতীয় পরিচয়পত্র না থাকায় আমরা মৌলিক চাহিদা থেকে বঞ্চিত। অভাব – অনটন, জরা – মৃত্যু নিত্যসঙ্গী। করোনা’কালিন সহায়তা পেতে প্রশাসনের প্রতি তার আকুতি।
স্থায়ী বাসিন্দাদের মতো সুযোগ সুবিধা ভোগ করতে না পারা, বেদে সম্প্রদায়ের এখন প্রয়োজন জরুরী খাদ্য ও চিকিৎসা সেবা।
পিছিয়ে পড়া বেদে জনগোষ্ঠীর প্রতি সহয়তার হাত প্রশারিত হলে করোনা’ সংকটে তাদের মৌলিক চাহিদা অন্তত মিটতো।

Check Also

করোনা আক্রান্ত দেশে লাখ ছাড়ালো

    অনলাইন ডেস্ক- দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৩৮ জনের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে করোনাভাইরাস। …