Breaking News
Home / পাঁচফোড়ন / চীনের কাছে প্রথমবার হেরে গেল ভারত

চীনের কাছে প্রথমবার হেরে গেল ভারত

দ্বিতীয়বারের মতো প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ক্ষমতা গ্রহণ করেছেন নরেন্দ্র মোদী। কিন্তু দায়িত্বের প্রথম দিনটাই ছিল খারাপ। কারণ বিশ্বের দ্রুততম-প্রবৃদ্ধশীল অর্থনীতির দেশের তালিকায় চীনের কাছে প্রথমবারের মতো হেরে গেছে ভারত।

গত ৫ বছরে ভারতের অর্থনৈতিক বৃদ্ধি ছিল খুবই ধীর গতির। শুক্রবার ২০১৮-১৯ অর্থবর্ষের শেষ ত্রৈমাসিক ও পুরো বছরের অর্থনৈতিক বৃদ্ধির হার প্রকাশ করেছে কেন্দ্রীয় পরিসংখ্যান মন্ত্রণালয়।

ইন্দিরা গান্ধীর পর দেশের প্রথম নারী অর্থমন্ত্রী হিসেবে নির্মলা সীতারামনের অভিষেকের দিনেই সরকারি ওই পরিসংখ্যান জানিয়েছে, গত অর্থবর্ষের শেষ ত্রৈমাসিকে ভারতের অর্থনৈতিক বৃদ্ধি ৫ দশমিক ৮ শতাংশ কমেছে।

তবে আর্থিক বিষয়ক সচিব সুভাষচন্দ্র গর্গের দাবি, পুরো অর্থবর্ষের বৃদ্ধির ক্ষেত্রে ভারত এখনও চীনের আগে। ২০১৮-১৯ সালে এ দেশের অর্থনীতির বৃদ্ধি হার ৬ দশমিক ৮ শতাংশ আর চীনের ৬ দশমিক ৪ শতাংশ।

কিন্তু দুশ্চিন্তা সেক্ষেত্রেও। কারণ, মোদি সরকারের প্রথম দফার পাঁচ বছরে ৬ দশমিক ৮ শতাংশই সর্বনিম্ন। তার উপরে এপ্রিলে কমেছে পরিকাঠামোয় বৃদ্ধির গতি। দীর্ঘ টালবাহানা শেষে কেন্দ্র জানিয়েছে, নোট বাতিলের ঠিক পরে ২০১৭-১৮ অর্থবর্ষে বেকারত্বের হার ৬ দশমিক ১ শতাংশ বেড়েছে।

গত অর্থবর্ষের শেষ তিন মাসে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ৬ শতাংশের নিচে (৫.৮%) নেমেছে। ১৭টি ত্রৈমাসিকের মধ্যে বৃদ্ধির হার সবচেয়ে কম। গত দু’বছরের মধ্যে এই প্রথম ভারতকে টপকে গেছে চীন।

পুরো আর্থিক বছরে বৃদ্ধির হার ছিল ৬ দশমিক ৮ শতাংশ যা মোদি জামানার প্রথম পাঁচ বছরে সর্বনিম্ন। কেন্দ্রের অবশ্য দাবি, এই তালিকায় আরও পেছনে রয়েছে চীন।

এপ্রিলে ধাক্কা খেয়েছে পরিকাঠামো ক্ষেত্রও। এই ক্ষেত্রে বৃদ্ধি কমেছে ২ দশমিক ৬ শতাংশ। সরাসরি উৎপাদন কমেছে অশোধিত তেল, প্রাকৃতিক গ্যাস, সারের মতো পণ্যের।

Check Also

ভালুকায় রকেটের একাউন্ট হ্যাক করে নারী গার্মেন্টস শ্রমিকের টাকা আত্মসাৎ

ভালুকায় রকেটের একাউন্ট হ্যাক করে নারী গার্মেন্টস শ্রমিকের টাকা আত্মসাৎ ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধিঃ ভালুকায় ডাচ …

Leave a Reply